Home » Result » অনার্স ১ম বর্ষের রেজাল্ট

অনার্স ১ম বর্ষের রেজাল্ট

অনার্স ১ম বর্ষের রেজাল্ট

বাংলাদেশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ১৯৯২ সালে প্রতিষ্টা করা হয়। বর্তমানে শিক্ষার্থী সংখ্যার দিক দিয়ে বিশ্বের চতুর্থ অবস্থান করছে এই এফিলেট বিশ্ববিদ্যালয়টি।যেটা দেশের বিভিন্ন স্থানে দুই হাজার একশ তিন টির ও বেশি কলেজ এর মাধ্যমে বাংলাদেশের সর্বত উচ্চ শিক্ষার আলো পৌচ্ছে দিচ্ছে। প্রতি বছর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ১ম বর্ষের পরীক্ষা হয়। এবং অনার্স ১ম বর্ষের রেজাল্ট তার দুই মাসেই প্রকাশ করা হয়।

অনার্স ১ম বর্ষের রেজাল্ট

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় দশটি বিষয়ে স্নাতক এবং সম্মান ডিগ্রী প্রদান করে যথা: ভাষা, মানবিক, সামাজিক বিজ্ঞান, জৈবিক বিজ্ঞান, শিক্ষা, বাণিজ্য ও ব্যবসায় প্রশাসন, শারীরিক বিজ্ঞান, গণিত, আইন এবং কম্পিউটার প্রযুক্তি। অনার্স হলো সহজ এক উপায় যার মাধ্যমে চাকুরি জীবিরা প্রমোশন বা পদউন্নতির জন্য স্বল্প খরচে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারে। এছাড়াও অনার্স ১ম বর্ষের রেজাল্ট, এক জন ছাত্রের সম্পূর্ণ ৪ বছরের রেজাল্টের সাথে যোক করা হয়।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের  অনার্স ১ম বর্ষের পরীক্ষার রেজাল্ট দেখার পদ্ধতিঃ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ১ম বর্ষ পরীক্ষার  রেজাল্ট দেখতে পারবেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট www.nu.ac.bd এবং nubd.info/hons.php থেকে। এছাড়াও এসএমএস এর মাধ্যমে দেখতে পারবেন ২০১৯ সালের অনার্স ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফলাফল। নিন্মে উভয় পদ্মতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

মোবাইলে এসএমএস এর মাধ্যমে অনার্স ১ম বর্ষের ফলাফল দেখার নিয়মঃ

মোবাইলে এসএমএস এর মাধ্যমে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের অনার্স ১ম বর্ষের ফলাফল মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে লিখুন NU এরপর একটি স্পেস দিয়ে H1 লিখুন এর একটি স্পেস দিয়ে আপনার রেজিস্ট্রেশন/রোল নম্বর লিখুন। উক্ত এসএমএস ১৬২২২ নাম্বারের পাঠিয়ে দিন। ফিরতি এসএমএস এ পেয়ে যাবেন আপনার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষার রেজাল্ট।

উদাহরণঃ NU<space>H1<space>101118681951 & send to 16222

অনার্স ১ম বর্ষের পরীক্ষার রেজাল্ট প্রকাশের পরেই আপনাকে এসএমএস পাঠাতে হবে। কিন্তু আপনি যদি নির্দিষ্ট সময়ে আগে বা পরে এসএমএস না পাঠালে অনার্স ৪র্থ বর্ষ পরীক্ষার ফল দেখতে পারবেন না৷ এসএমএস যেকোনো মোবাইল অপারেটর থেকে পাঠানো যাবে তবে টেলিটক সিম থেকে এস এম এস দিলে দ্রুত ফলাফল পাবেন।

অনার্স ১ম বর্ষের ফলাফল অনলাইনে দেখার নিয়মঃ

ইন্টারনেটের মাধ্যমে অনার্স ১ম বর্ষের রেজাল্ট একসাথে দেখতে ভিজিট করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট http://www.nu.ac.bd/results/ । তারপর রেজাল্ট পেজের বাম সাইড এর সার্চ অপশনে Honours ক্লিক করলে ৫ টা অপশন আসবে এর ভিতর থেকে 4th year আপশন সিলেক্ট করুন। এরপর সার্চ বক্সে আপনার রোল, রেজিস্ট্রেশন নম্বর এবং পরীক্ষার বছর ২০১৯ দিয়ে সার্চ করতে হবে। এরপর একটা হিজিবিজি ক্যাপচা কোড দেখতে পাবেন। সর্তকতার সাথে ক্যাপচা কোড ঠিক ভাবে এন্ট্রি দিন। এরপর সার্চ রেজাল্ট এ ক্লিক করুন। পেয়ে যাবেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স চতুর্থ বর্ষ পরীক্ষার রেজাল্ট খুব সহজেই। উল্লেখ, যে ফলাফল প্রকাশের দিন আপনি এই সাইট থেকে রেজাল্ট পেতে কষ্ট হয়ে যাবে। যেহেতু অনেক ছাত্র ছাত্রী বিভিন্ন জায়গা থেকে রেজাল্ট খুজে।

অনার্স ১ম বর্ষের রেজাল্ট সংশোধন /পুনঃমূল্যায়ন নিয়মাবলীঃ

পরীক্ষার ফলাফল পাবার পর আপনার যদি মনে হয় যে আপনার রেজাল্ট ভুল এসেছে তাহলে আপনি ফলাফল পুনঃমূল্যায়ন / সংশোধনের এর জন্য জাতীর বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন। 

প্রথমে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.nu.edu.bd তে গিয়ে service অপশন থেকে student login সিলেক্ট করে ইউজার আইডি পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করুন। (যারা ইতিপূর্বে রেজিস্ট্রেশন করেননি তারা আগে রেজিস্ট্রেশন করে তারপর লগইন করুন।)লগইন করার পর স্টুডেন্ট প্রোফাইল ফর্ম টি পূরণ করুন।তারপর ড্যাসবোর্ডের বাম পাশের Examination Service অপশন এ যাবেন Result Correction/Online name correct/other service লিঙ্কে ক্লিক করু এরপর application form টি ঠিক ভাবে পূরণ করে processed বাটনে ক্লিক করুন। আবেদন জমা দেয়ার পরে আপনার আবেদনের বর্তমান অবস্থা দেখতে লগইন > ড্যাসবোর্ড > Examination Service > Status দেখুন।

এ ফলাফল সম্পর্কে কোন পরীক্ষার্থী কিংবা সংশ্লিষ্ট কারো কোন আপত্তি/অভিযোগ থাকলে ফলাফল প্রকাশের এক মাসের মধ্যে অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

অনার্স ১ম বর্ষের রেজাল্ট ২০১৯ নিয়ে বিস্তারিতঃ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের অনার্স ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এ পরীক্ষায় ৩১টি অনার্স বিষয়ে ৮৪৮ টি কলেজের ২৯৪ টি কেন্দ্রের মাধ্যমে মােট ৪,৭২,১২২ (চার লক্ষ বাহাত্তর হাজার একশত বাইশ) জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে ১,৪৮,৪৯০ (এক লক্ষ আটচল্লিশ হাজার চারশত নব্বই) জন মানােন্নয়ন পরীক্ষার্থী। পাশের হার ৮৯.৩০%।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের অনার্স ১ম বর্ষের তত্বীয় পরীক্ষা শুরু হয় ১ আগষ্ট যা চলে ২৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের অনার্স ১ম বর্ষের পরীক্ষায় মোট চার লক্ষ বাহাত্তর হাজার একশত বাইশ জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করে।

 সিন্ডিকেটের অনুমােদন সাপেক্ষে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০১৯ সালের অনার্স ১ম বর্ষ পরীক্ষার প্রকাশিত ফলাফল সন্ধ্যা ৭:০০টা থেকে SMS এর মাধ্যমে যে কোন মােবাইলে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.nu.ac.bd ও www.nubd.info থেকে জানা যাবে।

অনার্স ১ম বর্ষের রেজাল্ট ২০১৮ বিস্তারিতঃ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ১ম বর্ষের পরীক্ষার রেজাল্ট প্রকাশ করা হয়েছে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের নিয়মিত এবং ২০১৫-১৬ ও ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের অনিয়মিত ও গ্রেড উন্নয়ন পরীক্ষার্থীদের ২০১৮ সালের অনার্স ১ম বর্ষ ফাইনাল পরীক্ষার পর রেজাল্ট প্রকাশ করা হয় সেপ্টেম্বর মাসে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল ও সিন্ডিকেট সভার অনুমােদন সাপেক্ষে ২০১৮ সালের অনার্স ১ম বর্ষের পরীক্ষার বাংলা, ইংরেজী, আরবী, সংস্কৃত, ইতিহাস, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি, দর্শন, ইসলামী শিক্ষা, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, সমাজবিজ্ঞান, সমাজকর্ম, অর্থনীতি, মার্কেটিং, ফিন্যান্স-এন্ড-ব্যাংকিং, হিসাববিজ্ঞান, ব্যবস্থাপনা, পদার্থবিদ্যা, রসায়ন, প্রাণ-রসায়ন, উদ্ভিদবিদ্যা, প্রাণিবিদ্যা, ভূগােল ও পরিবেশ, মৃত্তিকা বিজ্ঞান, মনােবিজ্ঞান, গাহর্থ্য অর্থনীতি, পরিসংখ্যান, গণিত, গ্রন্থাগার ও তথ্য বিজ্ঞান, নৃ-বিজ্ঞান এবং পরিবেশ বিজ্ঞান বিষয়ের ফলাফল ২২/০৯/২০১৮ তারিখে প্রকাশ করা হয়েছে। অনার্স ১ম বর্ষের রেজাল্ট

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮ সালের অনার্স ১ম বর্ষের পরীক্ষার প্রকাশিত ফলাফলে ৩০টি অনার্স বিষয়ে ৬১৩ টি কলেজের ১৮২ টি কেন্দ্রে ১ লাখ ৮৪ হাজার ৯২৩ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ১ম বর্ষ পরীক্ষায় ৭৯% শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

অনার্স ১ম বর্ষের ২০১৭ ফলাফল বিস্তারিতঃ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০১৭ সালের অনার্স ১ম বর্ষের পরীক্ষার ফলাফল ০৬/০৯/২০১৮ তারিখ বিকাল ৫ টায় প্রকাশ করা হয়েছে। এ পরীক্ষায় সারাদেশে সারাদেশে ৫৪৯টি কলেজে ৩০টি অনার্স বিষয়ে মোট ১ লাখ ৩৩ হাজার ১১৩ জন পরীক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নেয়। পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৮৩ দশমিক ৫০ শতাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*