Home » Sim Offer » এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড

জরুরি মুহুতে এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড ডায়াল করলেই, কথা হবে নিশ্চিন্তে। কারণ এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড ডায়াল করার সাথে সাথে আপনার একাউন্টে ব্যালেন্স যোগ হবে।

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড

এয়ারটেলে ১০ টাকার কম ব্যালেন্স মোবাইলে থাকলে আপনি ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে পারবেন। এখন *১৪১# ডায়াল করে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স, ইন্টারনেট ডাটা আর মিনিট লোন নিতে পারবেন যখন তখন। নিম্নে এই বিষয়ে বিস্তারিত বলা হয়েছে।

কিভাবে ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিবেন?

  • আপনার ফোনের ডায়ালে গিয়ে ডায়াল করুন *১৪১#
  • একটা মেনু দেখাবে। ওখানে আপনাকে একটা নির্দিষ্ট পরিমান টাকা দেখাবে।পাশে ফি কত আসবে তাও।
  • যদি আপনি ঐ নির্দিষ্ট পরিমান টাকা ইমারজেন্সি ব্যালেন্স হিসেবে নিতে চান তার পাসে থাকা নম্বর টি টাইপ করে সেন্ডে ক্লিক করুন।
  • আপনাকে একটিভেট করার জন্য বলতে পারে। 
  • এই ইমারজেন্সি ব্যালেন্স সরাসরি আপনার একাউন্টে জমা হবে।

লোনের পরিমানের উপর চার্জ কত?

একটা নির্দিষ্ট পরিমান টাকা লোন নিলে একটা সার্ভিস ফি আপনাকে দিতে হবে। নিম্নে কত টাকার সার্ভিস ফি কত আসবে তা উল্লেখ করা হলো।

১২ টাকার লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ১২ টাকা লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ১৪.৬৭ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  ২.৬৭ টাকা এয়ারটেল সার্ভিস চার্জ হিসেবে কেটে রাখবে।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড

১৫ টাকার লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ১৫ টাকা লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ১৭.৬৭ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  ২.৬৭ টাকা এয়ারটেল সার্ভিস চার্জ হিসেবে কেটে রাখবে।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

২২ টাকার লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ২২ টাকা লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ২৪.৬৭ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  ২.৬৭ টাকা এয়ারটেল সার্ভিস চার্জ হিসেবে কেটে রাখবে।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

২৫ টাকার লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ২৫ টাকা লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ২৭.৬৭ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  ২.৬৭ টাকা এয়ারটেল সার্ভিস চার্জ হিসেবে কেটে রাখবে।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

৩২ টাকার লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ৩২ টাকা লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ৩৪.৬৭ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  ২.৬৭ টাকা এয়ারটেল সার্ভিস চার্জ হিসেবে কেটে রাখবে।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

৫০ টাকার লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ৫০ টাকা লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ৫২.৬৭ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  ২.৬৭ টাকা এয়ারটেল সার্ভিস চার্জ হিসেবে কেটে রাখবে।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড

১০০ টাকার লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ১০০ টাকা লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ১০২.৬৭ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  ২.৬৭ টাকা এয়ারটেল সার্ভিস চার্জ হিসেবে কেটে রাখবে।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

এয়ারটাইম লোন ছাড়া ও এয়ারটেল মিনিট ও ইমারজেন্সিতে দেয়। নিন্মে মিনিট অফার গুলো দেখানো হল।

২ মিনিট লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ২ মিনিট ভয়েস লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ২ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  আপনি পাচ্ছের মাত্র ২ টাকা ২ মিনিট এয়ারটেল ভয়েস মিনিট। সার্ভিস চার্জ হিসেব মিনিট লোনের ক্ষেত্রে নেই। এই মিনিট গুলোর মেয়ার ৪ ঘন্টা।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট (২ মিনিটের জন্য ২টাকা) কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

মেয়াদ শেষে এই মিনিট আর ব্যবহার করতে পারবেন না।

৫ মিনিট লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ৫ মিনিট ভয়েস লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ৫ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  আপনি পাচ্ছের মাত্র ৫ টাকা ৫ মিনিট এয়ারটেল ভয়েস মিনিট। সার্ভিস চার্জ হিসেব মিনিট লোনের ক্ষেত্রে নেই। এই মিনিট গুলোর মেয়ার ৫ ঘন্টা।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট (৫ মিনিটের জন্য ৫ টাকা) কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

মেয়াদ শেষে এই মিনিট আর ব্যবহার করতে পারবেন না।

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড

১৪ মিনিট লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ১৪ মিনিট ভয়েস লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ১১ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  আপনি পাচ্ছের মাত্র ১১ টাকা ১৪ মিনিট এয়ারটেল ভয়েস মিনিট। সার্ভিস চার্জ হিসেব মিনিট লোনের ক্ষেত্রে নেই। এই মিনিট গুলোর মেয়ার ১৬ ঘন্টা।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট (১৪ মিনিটের জন্য ১১ টাকা) কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

মেয়াদ শেষে এই মিনিট আর ব্যবহার করতে পারবেন না।

২০ মিনিট লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ২০ মিনিট ভয়েস লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ১৬ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  আপনি পাচ্ছের মাত্র ১৬ টাকা ২০ মিনিট এয়ারটেল ভয়েস মিনিট। সার্ভিস চার্জ হিসেব মিনিট লোনের ক্ষেত্রে নেই। এই মিনিট গুলোর মেয়ার ২৪ ঘন্টা।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট (২০ মিনিটের জন্য ১৬  টাকা) কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

মেয়াদ শেষে এই মিনিট আর ব্যবহার করতে পারবেন না।

৩২ মিনিট লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ৩২ মিনিট ভয়েস লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ২৫ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  আপনি পাচ্ছের মাত্র ২৫ টাকা ৩২ মিনিট এয়ারটেল ভয়েস মিনিট। সার্ভিস চার্জ হিসেব মিনিট লোনের ক্ষেত্রে নেই। এই মিনিট গুলোর মেয়ার ২৪ ঘন্টা।

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট (৩২ মিনিটের জন্য ২৫ টাকা) কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

মেয়াদ শেষে এই মিনিট আর ব্যবহার করতে পারবেন না।

মিনিট ছাড়াও জরুরি প্রয়োজনে ইন্টারনেট ও লোণ নেওয়া যায়। নিন্মে ইন্টারনেট লোন অফার গুলো আলো চনা করা হলো।

৭০ এমবি লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ৭০ এমবি ইন্টারনেট লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ১৪.৬৭ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  আপনি পাচ্ছের মাত্র ১৪.৬৭ টাকায় ৭০ এমবি এয়ারটেল ইন্টারনেট অফার। সার্ভিস চার্জ হিসেব মিনিট লোনের ক্ষেত্রে নেই। এই ইন্টারনেট গুলোর মেয়ার ৩ দিন

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট (১৪.৬৭ টাকা) কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

মেয়াদ শেষে এই ইন্টারনেট আর ব্যবহার করতে পারবেন না।

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড

৩০০ এমবি লোন নিলেঃ

আপনি যদি এয়ারটেল থেকে ৩০০ এমবি ইন্টারনেট লোন নিইয়ে থাকেন, তবে আপনাকে ২৫ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এই খানে  আপনি পাচ্ছের মাত্র ২৫ টাকায় ৩০০ এমবি এয়ারটেল ইন্টারনেট অফার। সার্ভিস চার্জ হিসেব মিনিট লোনের ক্ষেত্রে নেই। এই ইন্টারনেট গুলোর মেয়ার ৩ দিন

শর্তঃ

পরবর্তী রিচার্জের থেকে আপনার লোন এমাউন্ট (২৫ টাকা) কেটে নেওয়া হবে।

একবার লোন নেওয়ার পর সেটা বাতিল করা যাবে না।

মেয়াদ শেষে এই ইন্টারনেট আর ব্যবহার করতে পারবেন না।

এছাড়াও নিচে লিষ্টে সুন্দর ভাবে আফার গুলো উপস্থাপন করে দিয়েছি আপনাদের সুবিধার্থে।

ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স:

লোনের পরিমাণ সার্ভিস ফি  সর্বমোট (টাকা)
১২ টাকা ২.৬৭ টাকা ১৪.৬৭
১৫ টাকা ২.৬৭ টাকা ১৭.৬৭
২২ টাকা ২.৬৭ টাকা ২৪.৬৭
২৫ টাকা ২.৬৭ টাকা ২৭.৬৭
৩২ টাকা ২.৬৭ টাকা ৩৪.৬৭
৫০ টাকা ২.৬৭ টাকা ৫২.৬৭
১০০ টাকা ২.৬৭ টাকা ১০২.৬৭

এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড

ভয়েস মিনিট লোন:

মূল্য (টাকা) মিনিট (যেকোনো নম্বরে) মেয়াদ
৪ ঘণ্টা
৫ ঘণ্টা
১১ ১৪ ১৬ ঘণ্টা
১৬ ২০ ২৪ ঘণ্টা
২৫ ৩২ ২৪ ঘণ্টা

ইন্টারনেট লোন:

মূল্য (টাকা) ভলিউম মেয়াদ
১৪.৬৭ ৭০ এমবি ৩ দিন
২৫ ৩০০ এমবি ৩ দিন

One thought on “এয়ারটেল ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*